Don't Miss
Home / হোম স্লাইডার / শীতের সবজির দাম আরও কমেছে
সবজি

শীতের সবজির দাম আরও কমেছে

এমএনএ শিল্প ও বানিজ্য ডেস্কঃ শীতের সবজির দাম আরও কমেছে। ক্রেতাদের অনেকেই বলছেন, দীর্ঘদিন পর সস্তায় পাওয়া যাচ্ছে সবজি। আর ব্যবসায়ীরা বলছেন, সরবরাহ বাড়ার কারণে শীতের সবজি ফুলকপি, বাঁধাকপি, শিম, মূলার দাম আরও কমেছে।

এ নিয়ে টানা দুই সপ্তাহ শীতের সবজির দাম কমলো। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি কমেছে শিমের দাম। দুই সপ্তাহের ব্যবধানে শিমের দাম তিন ভাগের একভাগে নেমেছে। ১২০ টাকা কেজি শিম এখন ৪০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

সবজির দাম কমায় ক্রেতাদের মধ্যে কিছুটা হলেও স্বস্তি ফিরতে শুরু করেছে। এ প্রসঙ্গে রাজধানীর গোপীবাগ এলাকার বাসিন্দা আতাউর রহমান বলেন, ‘এক মাস আগে যে শিম ১২০ টাকায় কিনেছি, এখন সেই শিম ৩০ টাকায় নেমেছে।’

কাওরান বাজারের সবজি ব্যবসায়ী আবদুল হামিদ বলেন, ‘সরবরাহ বাড়ার কারণে সবজির দাম কমেছে। সামনে দাম আরও কমতে পারে।’

এদিকে এক সপ্তাহের ব্যবধানে দেশি পেঁয়াজের দামও কিছুটা কমেছে। ৬৫ টাকায় নেমেছে দেশি পেঁয়াজের দাম। আগের মতোই ৪০ টাকা কেজি দরে আলু বিক্রি করছেন ব্যবসায়ীরা।

শুক্রবার রাজধানীর বিভিন্ন বাজার ঘুরে দেখা গেছে, শিমের কেজি বিক্রি হচ্ছে ৩০ থেকে ৪০ টাকা, যা গত সপ্তাহে ছিল ৫০ থেকে ৬০ টাকা। আর দুই সপ্তাহ আগে ছিল ১২০ টাকা কেজি। শিমের পাশাপাশি শীতের অন্যতম সবজি ফুলকপি ও বাঁধাকপির দামও কমেছে। মাঝারি সাইজের ফুলকপি বিক্রি হচ্ছে ২৫ থেকে ৪০ টাকার মধ্যে, যা গত সপ্তাহে ছিল ৩০ থেকে ৫০ টাকা। আর ছোট ফুলকপি গত সপ্তাহের মতো ২০ টাকায় পাওয়া যাচ্ছে। দুই সপ্তাহ আগে ছোট ফুলকপির দাম ৪০ টাকার ওপরে ছিল।

মাঝারি আকারের বাঁধাকপি বিক্রি হচ্ছে ৩০ থেকে ৪০ টাকার মধ্যে, যা গত সপ্তাহে ছিল ৩০ থেকে ৫০ টাকা। আর ছোট বাঁধাকপি ২০ টাকার মধ্যে পাওয়া যাচ্ছে। দুই সপ্তাহ আগে ৫০ টাকা কেজি বিক্রি হওয়া মূলা এখন ২০ থেকে ৩০ টাকার মধ্যে পাওয়া যাচ্ছে।

গত সপ্তাহে ১২০ থেকে ১৪০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হওয়া পাকা টমেটো ১০০ টাকায় নেমে এসেছে। বাজারে নতুন আসা কাঁচা টমেটো বিক্রি হচ্ছে ৪০ থেকে ৬০ টাকা কেজিতে। শাল গমের বিক্রি হচ্ছে ৫০ থেকে ৭০ টাকা কেজিতে। আর লাউয়ের দাম কমে ৪০ থেকে ৫০ টাকার মধ্যে চলে এসেছে। যা গত সপ্তাহে ছিল ৭০ থেকে ৮০ টাকা।

বাজার ও মান ভেদে গাজর আগের মতোই বিক্রি হচ্ছে ৮০ থেকে ১০০ টাকা কেজিতে। বরবটি গত সপ্তাহের মতো ৬০ থেকে ৮০ টাকা কেজি বিক্রি হচ্ছে। বেগুন বিক্রি হচ্ছে ৪০ থেকে ৬০ টাকার মধ্যে। করলা বিক্রি হচ্ছে ৬০ থেকে ৭০ টাকার মধ্যে।

সপ্তাহের ব্যবধানে দাম অপরিবর্তিত রয়েছে ঢেঁড়স, ঝিঙা, পটল, কচুর লতির। অবশ্য গত সপ্তাহে এ সবজিগুলোর দাম কিছুটা কমে। ঢেঁড়সের কেজি ৫০ থেকে ৬০ টাকা, যা দুই সপ্তাহ আগে ছিল ৭০ থেকে ৯০ টাকা। পটলের কেজি ৫০ থেকে ৬০ টাকা, যা দুই সপ্তাহ আগে ছিল ৬০ থেকে ৮০ টাকা। ঝিঙা ৪০ থেকে ৫০ টাকার মধ্যে চলে এসেছে। দুই সপ্তাহ আগে এই কেজি ৬০ টাকার ওপরে ছিল। ৭০ থেকে ৮০ টাকা কেজি বিক্রি হওয়া কচুর লতির দাম কমে ৪০ থেকে ৫০ টাকা হয়েছে।

গত সপ্তাহে ৭০ থেকে ৯০ টাকা কেজি বিক্রি হওয়া দেশি পেঁয়াজ এখন ৬৫ থেকে ৭৫ টাকার মধ্যে পাওয়া যাচ্ছে। আমদানি করা বড় পেঁয়াজের কেজি গত সপ্তাহের মতো ৪০ থেকে ৫০ টাকা বিক্রি হচ্ছে। কাঁচামরিচ আগের সপ্তাহের মতো এক পোয়া (২৫০ গ্রাম) বিক্রি বিক্রি হচ্ছে ২০ থেকে ৩০ টাকায়।

এদিকে গত সপ্তাহের মতো এক ডজন ডিম বিক্রি হচ্ছে ৯০ থেকে ৯৫ টাকায়। কিছুটা বেড়েছে ব্রয়লার মুরগির দাম। গত সপ্তাহে ১২০ টাকা কেজি বিক্রি হওয়া ব্রয়লার মুরগির দাম বেড়ে ১৩০ টাকা হয়েছে।

x

Check Also

বাংলাদেশে প্রথম করোনাভাইরাসের টিকা পাবেন একজন নার্স

এমএনএ সংবাদ ডেস্ক :  বাংলাদেশে প্রথম করোনাভাইরাসের টিকা ২৭ জানুয়ারি রাজধানীর কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে দেওয়া ...

Scroll Up
%d bloggers like this: