Don't Miss
Home / আজকের সংবাদ / আন্তর্জাতিক / মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে বিষাক্ত চিঠি পাঠানোর দায়ে নারী আটক
মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে বিষাক্ত চিঠি পাঠানোর দায়ে নারী আটক

এমএনএ আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের নামে হোয়াইট হাউসে বিষাক্ত পদার্থ রাইসিন মেশানো চিঠি পাঠানোর ঘটনায় সন্দেহভাজন একজন নারীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। সন্দেহভাজন ওই নারী ২০ সেপ্টেম্বর কানাডা থেকে নিউইয়র্ক অঙ্গরাজ্যের সীমান্ত পেরিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে ঢোকার চেষ্টার সময় তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। তার কাছ থেকে একটি বন্দুক জব্দ করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠনের প্রক্রিয়া চলছে। খবর সিএনএন।

মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা এফবিআইয়ের একজন মুখপাত্র সন্দেহভাজন ওই নারী গ্রেপ্তার হওয়ার বিষয়টি ২০ সেপ্টেম্বর নিশ্চিত করে বলেছেন, এ বিষয়ে এখনো তদন্ত চলছে। মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা এফবিআই ও প্রেসিডেন্টের নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা সিক্রেট সার্ভিস বিষয়টি তদন্ত করছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, হোয়াইট হাউসে আসা যেকোনো চিঠি ভেতরে পৌঁছানোর আগেই পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হয়। চলতি সপ্তাহের শুরুর দিকে ওই পরীক্ষা-নিরীক্ষাতেই রাইসিন মেশানো চিঠির বিষয়টি ধরা পড়ে। ক্যাস্টর ওয়েল তৈরি হয় যে বীজ থেকে, সেই বীজ থেকে বিষাক্ত রাইসিন তৈরি হয়। তদন্তকারীদের ধারণা, চিঠিটি কানাডা থেকে এসেছে। সন্দেহভাজন একজন নারী ওই চিঠি কানাডা থেকে পাঠিয়েছেন।

ডোনাল্ড ট্রাম্পের নামে হোয়াইট হাউসে পাঠানো চিঠি কানাডার কুইবেকের সেন্ট হুবার্ট থেকে এসেছে। চিঠিটি দুই দফা পরীক্ষা করা হয়েছে। দুই পরীক্ষাতেই বিষাক্ত রাইসিনের উপস্থিতি পাওয়া গেছে।

যুক্তরাষ্ট্রের সেন্টারস ফর ডিজিস কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশন (সিডিসি) বলছে, রাইসিন কোনোভাবে খেয়ে ফেললে, নিশ্বাস বা ইনজেকশনের মাধ্যমে শরীরে প্রবেশ করলে মাথা ঘোরা, বমি ও অভ্যন্তরীণ রক্তক্ষরণ শুরু হয়। একপর্যায়ে শরীরের অঙ্গপ্রত্যঙ্গ বিকল হতে থাকে। কতটুকু পরিমাণ রাইসিন শরীরে প্রবেশ করেছে তার ওপর নির্ভর করে ৩৬ থেকে ৭২ ঘণ্টার মধ্যে মানুষের মৃত্যু ঘটে। রাইসিনের বিষক্রিয়া প্রতিরোধে কোনো প্রতিষেধক নেই। রাইসিন দিয়ে তৈরি গুঁড়া ও স্প্রে অস্ত্র হিসেবে ব্যবহার করা সম্ভব।

x

Check Also

করোনা ভাইরাসে

করোনায় বিশ্বব্যাপী ১১ লাখ ৭১ হাজার জন মানুষ প্রাণ হারাল

এমএনএ আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ মহামারী করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে সারা বিশ্বে ১১ লাখ ৭১ হাজার ৩৩৭ ...

Scroll Up
%d bloggers like this: