Don't Miss
Home / জাতীয় / নকল মাস্ক সরবরাহের দায়ে অপরাজিতা ইন্টারন্যাশনালের স্বত্বাধিকারীর শারমিন গ্রেফতার
শারমিন

নকল মাস্ক সরবরাহের দায়ে অপরাজিতা ইন্টারন্যাশনালের স্বত্বাধিকারীর শারমিন গ্রেফতার

এমএনএ জাতীয় রিপোর্টঃ মাস্ক সরবরাহে অনিয়মের অভিযোগ এনে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) হাসপাতালের করা মামলায় অপরাজিতা ইন্টারন্যাশনালের স্বত্বাধিকারী শারমিন জাহানকে গ্রেফতার করা হয়েছে। আজ শুক্রবার (২৪ জুলাই) রাতে রাজধানীর শাহবাগ এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

শাহবাগ থানার ওসি আবুল হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, রাত সাড়ে ১০টায় রাজধানীর শাহবাগ এলাকা থেকে অপরাজিতা ইন্টারন্যাশনালের স্বত্বাধিকারী শারমিন জাহানকে গ্রেফতার করা হয়।

এর আগে বৃহস্পতিবার রাতে বিএসএমএমইউয়ের প্রক্টর মোজাফফর আহমেদ বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেন। প্রতারণার অভিযোগ এনে দায়ের করা মামলায় আসামি করা হয়েছে অপরাজিতা ইন্টারন্যাশনালের স্বত্বাধিকারী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী রেজিস্ট্রার শারমিন জাহানকে।

মামলা সূত্রে জানা যায়, বিএসএমএমইউ হাসপাতালে করোনা রোগীদের চিকিৎসা দেয়া শুরু হয় গত ৪ জুলাই। এখানে প্রথম ও দ্বিতীয় ব্যাচে সরবরাহকৃত এন-৯৫ মাস্ক ঠিকই ছিল। তবে গত শনিবার তৃতীয় ব্যাচের এন-৯৫ মাস্ক নিয়ে অভিযোগ উঠেছে। এসব মাস্কে লেখা ভুল, লট নম্বর নেই।

দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রতিষ্ঠান অপরাজিতা ইন্টারন্যাশনাল আসল এন-৯৫ মাস্কের সঙ্গে নকল মাস্কও সরবরাহ করেছে বলে অভিযোগ করা হচ্ছে। প্রতিষ্ঠানটির কাছ থেকে ৮০-৯৫ লাখ টাকার মাস্ক কিনেছে বিএসএমএমইউ কর্তৃপক্ষ। এ ঘটনায় প্রতিষ্ঠানটিকে শোকজও করেছে বিএসএমএমইউ এবং তিন সদস্যের তদন্ত কমিটিকে তিন কর্মদিবসের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে।

শোকজ নোটিশের পরিপ্রেক্ষিতে গত বুধবার জবাব দিয়েছেন অপরাজিতা ইন্টারন্যাশনালের স্বত্বাধিকারী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী রেজিস্ট্রার শারমিন জাহান। তিনি আত্মপক্ষ সমর্থন করে বলেছেন, বিষয়টি অনাকাঙ্খিত। প্যাকেটজাত অবস্থায় মাস্কগুলো তাদের হাতে এসেছে, আর সেভাবেই হাসপাতালে পৌঁছে দেয়া হয়েছে। অভিযোগ পাওয়ার পরপরই মাস্ক ফেরত নেয়া হয়েছে।

তবে বিএসএমএমইউ উপাচার্য অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া বলেছেন নোটিশের জবাব গ্রহণযোগ্য নয়। বিষয়টি তদন্তের জন্য তিন সদস্যবিশিষ্ট কমিটি গঠন করা হয়েছে। যারা এই ঘৃণ্য কাজের সঙ্গে জড়িত তাদের বিরুদ্ধে অবশ্যই ব্যবস্থা নেয়া হবে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসন-১ শাখায় সহকারী রেজিস্ট্রার হিসেবে কর্মরত শারমিনের মালিকানাধীন অপরাজিতা ইন্টারন্যাশনাল ২৭ জুন ১১ হাজার মাস্ক সরবরাহের কার্যাদেশ পায়। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইসলামিক স্টাডিজে স্নাতকোত্তর শারমিন ২০০২ সালে ছাত্রলীগের বাংলাদেশ কুয়েত মৈত্রী হল শাখার সভাপতি নির্বাচিত হন। আওয়ামী লীগের গত কমিটিতে তিনি মহিলা ও শিশুবিষয়ক কেন্দ্রীয় উপকমিটির সহসম্পাদক ছিলেন।

বর্তমান কমিটিতে কোনো পদ না পেলেও দলের সঙ্গে সক্রিয়ভাবে জড়িত। শারমিন ২০১৬ সালের ৩০ জুন স্কলারশিপ নিয়ে চীনের উহানের একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়তে যান। গত ২৩ জানুয়ারি থেকে উহানে লকডাউন শুরু হলে তিনি দেশে ফিরে আসেন। তার শিক্ষা ছুটির মেয়াদ এখনও শেষ হয়নি। এর মধ্যে চীনে থাকা অবস্থায় ২০১৯ সালের মার্চে অপরাজিতা ইন্টারন্যাশনাল নামে সরবরাহকারী নিজের ব্যবসা শুরু করেন

x

Check Also

ভোট শেষ, এখন ফলাফলের প্রতীক্ষা।

এমএ সংবাদ ডেস্ক : দ্বিতীয় ধাপে দেশের ৬০টি পৌরসভায় ভোটগ্রহণ শেষে চলছে গণনা।তারপর ফলাফলের প্রতীক্ষা। ...

Scroll Up
%d bloggers like this: